অলৌকিক!

1
526

মোহাম্মদী ইসলামের বিরুদ্ধাচরণ করায় বজ্রপাতে মৃত্যু

আশেকে রাসুল মো. শহীদ উল্লাহ, কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলাধীন চান্দলা ইউনিয়নের অধিবাসী। তার মহান মোর্শেদ যুগের ইমাম, মোহাম্মদী ইসলামের পুনর্জীবনদানকারী, আম্মিয়ায়ে কেরামের ধর্মের দায়িত্ব ও বেলায়েত লাভকারী, পূর্ণিমার চাঁদে বাবা দেওয়ানবাগীর জীবন্ত প্রতিচ্ছবি সূফী সম্রাট হযরত সৈয়দ মাহ্বুব-এ-খোদা দেওয়ানবাগী (মা. আ.) হুজুর কেবলাজান। এই মহামানবের কাছে তরিকা গ্রহণ করে মোহাম্মদী ইসলামের অনুসরণ করায় তিনি বিভিন্ন সময়ে মহান আল্লাহর অলৌকিক সাহায্য লাভ করেছেন।

আলোচ্য ঘটনা ২০০৩ সালের শেষের দিকের। ঘটনার দিন তিনি তার গ্রামের রাস্তা দিয়ে পথ চলছিলেন। দিনটি ছিল বৃষ্টিমুখর। কখনো হালকা আবার কখনো ভারী বৃষ্টির বর্ষণ হচ্ছিল। একটু পর পর মুহুর্মূহু গগনবিদারী বিকট আওয়াজে বজ্রপাত হচ্ছিল। তিনি তার গ্রামের বাড়ির অদূরে ব্রিজের উপর দিয়ে হেঁটে হেঁটে একটি জরুরি কাজে যাচ্ছিলেন। ইত্যবসরে তিনি লক্ষ্য করলেন, তার পরিচিত এক ব্যক্তি, যে বিভিন্ন সময়ে তাকে দেখলেই তার মোর্শেদ সূফী সম্রাট হযরত দেওয়ানবাগী (মা. আ.) হুজুর কেবলাজান সম্পর্কে নানান কটূক্তি করত, সে ব্যক্তি তারই দিকে এগিয়ে আসছে। এ সময় চতুর্দিকের বজ্রপাতে তার অন্তরে যেমন একটা ভয় কাজ করছিল, তেমনি ঐ লোকটিকে তার দিকে আসতে দেখে তার মনটাও ভীষণ খারাপ হয়ে গেল। এ অনাকাঙ্কিত বাস্তবতায় তিনি তার মহান মোর্শেদ কেবলার চেহারা মোবারক স্মরণ করে আজিজি করছিলেন, তখন তার চোখের সামনে বিস্ময়কর ঘটনাটি সংঘটিত হয়। তিনি দেখতে পেলেন- হঠাৎ একটি বিজলী চমকালো, চারদিক আলোকিত হয়ে উঠল; মুহূর্তে একটি বজ্র তারই সামনে পতিত হলো। তার মনে হচ্ছিল কিয়ামত কায়েম হয়ে গেছে। তিনি ভীত সন্ত্রস্ত অবস্থায় চক্ষু বন্ধ করে ‘বাবা বাবা’ বলে তার মহান মোর্শেদকে ডাকছিলেন। একটু পরে তাকিয়ে দেখেন, যে লোকটি তাকে দেখলেই তার মোর্শেদ কেব্লাকে নিয়ে নানান কটূক্তি করত, সে লোকটির উপরই বজ্রটি পতিত হয়েছে। অলী-আল্লাহর বিরুদ্ধাচরণ করায় তার চোখের সামনেই বজ্রাঘাতে লোকটি মারা গেল।

আশ্চর্যের বিষয় হলো- মহান আল্লাহ্ আশেকে রাসুল শহীদ উল্লাহর চোখের সামনে অনতিদূরে এ ঘটনা সংঘটিত করলেও তার কোনই ক্ষতি হয়নি। মহান আল্লাহ্ তাকে তাঁর অলী-বন্ধুর বরকতে অক্ষত ও নিরাপদ যেমন রেখেছেন, তেমনি এ ঘটনা ঘটিয়ে তার মোর্শেদ যে সত্য তাঁর প্রচারিত মোহাম্মদী ইসলাম যে আল্লাহ ও আল্লাহর রাসুলের ধর্ম, সে সত্যতা প্রমাণ করে তার ইমানও মজবুত করে দেন।

1 COMMENT

  1. সােপ্তাহিক দেওয়ানবাগ পড়ে ইসলাম ধর্মে অনেক গুরুত্বপূর্ণ।
    বিষয় জানতে পারলাম এবং পড়ে অনক ভাল লাগল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here