অলৌকিক!

1
294

সেজো সাহেবজাদা হুজুরের বিবাহোত্তর ওলিমা

আশেকে রাসুল শফিউদ্দীন মিয়া।
ঘটনাটি ২০১১ খ্রিষ্টাব্দের ২২ জানুয়ারি, শনিবারের। তার মহান মোর্শেদ, যুগের ইমাম, মোহাম্মদী ইসলামের পুনর্জীবনদানকারী সূফী সম্রাট হযরত সৈয়দ মাহ্বুব-এ-খোদা দেওয়ানবাগী (মা. আ.) হুজুর কেবলাজান সেজো সাহেবজাদা ইমাম ড. সৈয়দ এ.এফ.এম. ফজল-এ-খোদা (মা. আ.) হুজুরের বিবাহোত্তর ওলিমা বা বৌভাতের আয়োজন করা হয়। রাজধানীর বেইলী রোডে অবস্থিত অফিসার্স ক্লাবে আয়োজিত এই বৌভাতের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত মেহমান ছিলেন তিন হাজার জন।

মহান মোর্শেদ সেজো সাহেবজাদা হুজুরের বিবাহে মেহমানদের আপ্যায়নের জন্য পোলাও, গরুর মাংসের রেজালা, মুরগীর রোস্ট, সবজী, কাবাব, ফিরনী, চাটনী ও বোরহানীসহ প্রয়োজনীয় সকল খাবারের ব্যবস্থা করেন। উপরন্তু মহান মোর্শেদ তাঁর সাহেবজাদা হুজুরের ইচ্ছা অনুযায়ী মেহমানদের আপ্যায়নের জন্য আকর্ষণীয় রূপচাঁদা মাছের আয়োজন করেন। তিন হাজার মেহমানকে আপ্যায়ন করার জন্য তিন হাজার দু’শত পয়ষট্টিটি সামুদ্রিক রূপচাঁদা সংগ্রহ করা হয়। অবশ্য উক্ত অনুষ্ঠানে আরো প্রায় এক হাজার জাকের অতিরিক্ত মেহমান হিসেবে যোগদান করেন। ফলে মেহমানদের সংখ্যা দাঁড়ায় চার হাজার। এত বড়ো বিশাল অনুষ্ঠানের বর সেজো সাহেবজাদা ইমাম ড. সৈয়দ এ. এফ. এম. ফজল-এ-খোদা (মা. আ.) হুজুর অনুষ্ঠানের একদিন পূর্বে স্বীয় মোর্শেদ ও পিতা যুগের ইমাম বাবা দেওয়ানবাগীর শরণপন্ন হয়ে অনুষ্ঠান সুষ্ঠুভাবে সম্পন্নের জন্য মোর্শেদ কেবলাজানের দয়া কামনা করেন।

দুপুর দেড়টা থেকে অফিসার্স ক্লাবের বিশাল হলরুমে মেহমানদের আপ্যায়ন পর্ব শুরু হলো। মহান মোর্শেদের অপার দয়ায় অনুষ্ঠানের খাবার পরিবেশনের দায়িত্বে ছিলেন আশেকে রাসুল শফিউদ্দীন মিয়া। প্রতিবারে আটশ’ জন মেহমানের বসার ব্যবস্থা থাকায় পাঁচবারে সর্বমোট প্রায় চার হাজার মেহমান খাওয়ানো হয়। সবাইকেই একটি করে রূপচাঁদা মাছ দেওয়া হয়, এমনকি মেহমানদের কেউ কেউ শখের বসে একাধিক রূপচাঁদা মাছও খান। ফলে তিন হাজার দু’শত পয়ষট্টিটি রূপচাঁদা মাছ কমিউনিটি সেন্টারেই শেষ হয়ে আরো ঘাটতি পড়ার কথা ছিলো কিন্তু ঘাটতি পড়েনি বরং অফুরন্ত বরকত হয়। পরবর্তীতে বাবে রহমতে এই বরকতের মাছ দীর্ঘ চার মাস পর্যন্ত প্রায় চার হাজার লোক তৃপ্তির সাথে আহার করে। এমনিভাবে তিন হাজার দু’শত পয়ষট্টিটি মাছ প্রায় আট হাজার লোকে তৃপ্তির সাথে আহার করে। মহান রাব্বুল আলামিন তাঁর অলী বন্ধুর অসিলায় সেজো সাহেবজাদা হুজুরের বৌভাতের অনুষ্ঠানে এভাবেই অবারিত বরকত দান করেন।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here