আশুরা উপলক্ষ্যে শাহানাজ পারভীন সুমীর দুটি কবিতা

0
286

আশুরার মর্তবা
মর্সিয়া শোকের নয়, প্রভুর অভিষেকের জন্য
মহররম মাস, হলো অন্য মাস হতে অনন্য।
বাবা আদম পয়দা হন আশুরার শুভক্ষণে
সে দিনই;
দয়াল রাসুলের রূহ মোবারক সৃজন করেন প্রভু নিরঞ্জনে।
ইব্রাহিম (আ.) ভূমিষ্ঠ হন পবিত্র এ দিনে,
মরিয়ম তনয় তাশরিফ নেন এ দিন পিতাবিহনে,
আশুরার দিন,
ঈসা মসীহের আসমানে উড্ডয়ন প্রভুর আহবান
সে দিনই হয় ইসমাইল (আ.)-এর পবিত্র কোরবান।
মুসা নবি নীল নদ পার হয় পবিত্র এ দিনে
নমরুদের অগ্নিকুণ্ড শীতল হয়েছে আশুরার সম্মানে।
আশুরার দিন বর্ষিত হয় রহমতের প্রথম বৃষ্টি
জানা যায় এ দিনে হয় সমগ্র জগৎসৃষ্টি।
দয়াল রাসুল হিজরত করেন এ দিনে মদীনায়
আইয়ুব নবি রোগ যাতনা হতে চিরতরে মুক্তি পায়।
আশুরার সম্মানে,
বাদশা সোলাইমান হারানো রাজত্ব উদ্ধার করে,
ইউসুফ (আ.) ৪০ বছর পর ফিরে পান পিতার ঘরে।
ইউনুছ নবি এ দিনে মাছের পেট হতে মুক্তি পান
বিবি আছিয়া মুসা নবিরে তাঁর ঘরে নিয়ে যান।
আশুরার দিন,
নূহ নবির কিস্তি জুদী পাহাড়ে থামে
দাউদ (আ.) ক্ষমা পান মহান প্রভুর নামে।
এ দিনেতে,
ইমাম হোসাইন (রা.) হন কারবালায় কোরবান
এ দিনের মর্তবা যুগ-যুগান্তরে রবে তাই অম্লান।
পাপী-তাপী ত্বরাতে,
ধূলির ধরাতে শাহ দেওয়ানবাগীর তাশরিফ
এ দিনেই প্রতিষ্ঠিত করেন দেওয়ানবাগ শরীফ।
আশুরার অসিলায়,
তোমার নুর কদমে এসেছি মুক্তির লাগি,
ফিরিয়ে দিওনা তুমি ওগো দয়াল দেওয়ানবাগী।

মারহাবা, ইয়া ইমাম হোসাইন
ঘটাতে মোহাম্মদী ইসলামের অবসান
শেরে খোদার হৃদয়ের ধন, মা ফাতেমার জান,
কারবালাতে (ইমাম হোসাইন)
দয়াল রাসুলের নয়ন মণির কেড়ে নিলো প্রাণ।
কেমন করে লুটলে ধূলায় ভাবতে শরীর ওঠে কাঁপি
শিরচ্ছেদ করলো তাঁহার সীমার মহাপাপী।
বিষ নিক্ষিপ্ত তীরে দেহ মোবারক করেছে রঞ্জিত,
কুচক্রী এজিদ তারি রক্তে মসনদ করতে সুসজ্জিত।
কেঁপেছিল সেদিন আসমান-জমিন, স্তম্ভিত ছিল খোদা
তরুলতা: জড়জীব স্তব্দ হয়েছে দেখে তোমার অশ্রদ্ধা,
দুধের শিশুরাও খাবার খায়নি শোকে ছিল মূহ্যমান
কোনো কালে কেউ কি দেখেছিল এমন আত্মদান?
ফোরাত আজো গুমরে কাঁদে তোমার স্মৃতি স্মরে,
পানি পিলাতে পারেনি তাই অপরাধ মনে করে।
তোমার বিরহে;
কারবালর বৃক্ষরাজি, আজো ঝরায় তাজা খুন
এজিদের দল বুঝলনা তোমার অসীম গুণ।
সৃষ্টিরাজি মাতম করে, হায় হোসাইন রবে
আত্মদানের এমন নজির হবে কি আর ভবে?
ইতিহাসের মহাবীর, জান্নাতের সর্দার,
কেমনে অধম: গুণগান করব যে তোমার?
ইসলাম কে জিন্দা করতে নিয়েছ, শাহাদতের শরাব তুলে
আমরা কখনও যাবো না তোমার সে আদর্শ ভুলে।
মারহাবা, ইয়া ইমাম হোসাইন!
গাই তোমারি জয় গান,
মোহম্মদী নিশান হাতে নিয়ে রচাবো মুনাফেকের মহাশ্মশান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here