কবিতা

0
162

করোনা
ডা. মো. সাইয়েদূর রহমান মিঞা

সূক্ষ্ম, খালি চোখে থাক দৃষ্টির অগোচরে
যন্ত্রে দেখায় সুন্দর একটি ফুল,
আবার মনে হয় সুস্বাদু সুমিষ্ট আহার্য,
উত্তম চীজ? না কোনো মায়াবি ফুল?
তাকিয়ে থাকি অপলক দৃষ্টিতে
সৌন্দর্য অবলোকনে,
সুন্দরের মাঝে একি বিষ লুকানো, করোনা?
ত্রাস, বিভীষিকা তোমার যজ্ঞ।
জাহান্নামের ভয়ও হার মানিয়েছ,
কি ভয়ই না পায় মানুষ,
স্রষ্টাকেও এতো ভয় পায় কিনা!
অবলীলায় মানুষের মধ্যে ঢুকে পর
আস্বাদন কর ফুসফুসের নির্যাস,
নিঃশেষ করো কিছু বোঝার আগেই।
ছিন্ন করো সকল মায়ার বন্ধন,
কেউ ফেরে, কেউ চোখের জ্বলেই প্রস্থান।
কঠিন বাস্তবতা শেষ দেখার সুযোগটুকু দাও না,
মানুষ শ্রেষ্ঠ, স্রষ্টার সৃষ্টি, তুমি নও।
সেই মানুষ যখন হারিয়ে মনুষ্যত্ব।
লিপ্ত পাপাচার, ব্যভিচার অপরাধে,
সীমা লঙ্ঘিত হয় বিধাতার বিধান।
ঘটে মহামানবের আগমন
তাদের পথ ছেড়ে কিতাব সর্বস্ব
চলে মনগড়া বিধানে, বিধাতাকে ছেড়ে।
আসে মহাদুর্যোগ তাঁর পক্ষ থেকে
করোনা! তুমিও কি তাই?
শিক্ষা দিচ্ছ কিন্তু গাফেল হৃদয় অপরাধে নির্লিপ্ত।
করোনা তুমি যাও, যাও। শুধু ভয়টুকু রেখে যাও-
নিরপরাধ মনুষ্যত্ব ফিরে পাবার বাসনায়,
যুগের ইমামের পদাঙ্ক করি অনুসরণ,
করোনাই জানাবে কুর্নিশ।
আশেকে রাসুলদের বিজয় সুনিশ্চিত,
মহান আল্লাহ্ই তাদের সহায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here