করোনার দৈনিক সংক্রমণে বিশ্বে ফের এক নম্বরে ভারত

0
159

দেওয়ানবাগ ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের দৈনিক সংক্রমণে বিশ্বে ফের এক নম্বর স্থান দখল করেছে ভারত। ২৪ ঘণ্টায় দেশটির ৭৮ হাজারেরও বেশি মানুষের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। সেখানে সোমবারও একই সংখ্যক মানুষের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। বেশ কিছুদিন ধরেই শনাক্তে যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলকে ছাড়িয়ে যাচ্ছে ভারত।

বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, ভারতে শনাক্ত ও মৃত্যুর ভয়াবহতা যে হারে বাড়ছে তাতে দেশটি শিগগিরই যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলকে ছাড়িয়ে যাবে। এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দাবি করেছেন, করোনা ভাইরাসে চীনে ১ লাখ মানুষ মারা গেছেন। খবর হিন্দুস্থান টাইমস, আনন্দবাজার, আলজাজিরা, ফক্স নিউজ, বিবিসি ও রয়টার্স।

ওয়ার্ল্ডওমিটার জানায়, ৪ আগস্ট থেকে প্রায় প্রতিদিনই দৈনিক শনাক্তে শীর্ষে থাকছে ভারত। ক্রমাগত বাড়ছে শনাক্তের হার। মঙ্গলবার থেকে বুধবারের মধ্যে ভারতে ৭৮ হাজার ৩৫৭ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ সময় ১০৪৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার ৭৮ হাজার ৫১২ জনের করোনা শনাক্ত হয় এবং ৯৭১ জনের মৃত্যু হয়।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বুলেটিন অনুসারে বুধবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ভারতে করোনা শনাক্তের সংখ্যা ৩৭ লাখ ৬৯ হাজার ৫২৩ জন। ৬৬ হাজার ৩৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুহার ১ দশমিক ৭৬ শতাংশ। ২৯ লাখ ১ হাজার ৯০৮ জন সুস্থ হয়েছেন। সুস্থতার হার ৭৬ দশমিক ৭৮ শতাংশ।

ভারতে করোনা শনাক্তে শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র। এখানে ৭ লাখ ৯২ হাজার ৫৪১ জন শনাক্ত হয়েছেন। ২৪ হাজার ৫৮৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ। এখানে আক্রান্ত ৪ লাখ ৩৪ হাজার ৭৭১ এবং ৩ হাজার ৯৬৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বিশ্বের করোনা পরিসংখ্যান অনুযায়ী করোনা শনাক্ত ও মৃতের সংখ্যার নিরিখে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভারত। প্রথম স্থানে যুক্তরাষ্ট্র ও দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ব্রাজিল। গত ২৪ ঘণ্টায় যুক্তরাষ্ট্রে ৪১ হাজার ৯৭৯ জন এবং ব্রাজিলে ৪১ হাজার ৮৮৯ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে ৬২ লাখ ৫৭ হাজার ৫৭১ জন এবং ব্রাজিলে ৩৯ লাখ ৫২ হাজার ৭৯০ জন শনাক্ত হয়েছেন। ব্রাজিলে গত ১ দিনে ১ হাজার ১৬৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। মোট মৃত্যু ১ লাখ ২২ হাজার ৬৮১ জন। যুক্তরাষ্ট্রে গত ১ দিনে ১ হাজার ১৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। মোট মৃত্যু ১ লাখ ৮৮ হাজার ৯০০ জন। সারা বিশ্বে করোনা শনাক্তের সংখ্যা ২ কোটি ৫৮ লাখ ৯৯ হাজার ৬২১ জন। মোট ৮ লাখ ৬১ হাজার ২৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বৈশ্বিক প্রকল্পে শামিল হবে না যুক্তরাষ্ট্র : করোনার টিকা আবিষ্কার ও বিতরণে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু) সংশ্লিষ্ট আন্তর্জাতিক প্রচেষ্টায় শামিল হচ্ছে না যুক্তরাষ্ট্র।

ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন জানিয়েছে, হু’র মতো বহুপক্ষীয় সংস্থার কারণে তারা তাদের কার্যক্রম সীমিত করতে চায় না। টিকা আবিষ্কারে যুক্তরাষ্ট্র একাই চেষ্টা চালাবে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা চীন দ্বারা প্রভাবিত ও এটির সংস্কার প্রয়োজন বলে মনে করে ট্রাম্প প্রশাসন।

হু’কে দোষারোপ করে করোনার টিকা আবিষ্কারের বৈশ্বিক প্রচেষ্টা থেকে দূরে সরে গেল ট্রাম্প প্রশাসন। জুলাইয়ে হু থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয় যুক্তরাষ্ট্র।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দাবি করেছেন, করোনাভাইরাসে চীনে ১ লাখ মানুষ মারা গেছেন। কোনো প্রমাণ ছাড়াই তিনি এ দাবি করেন। মঙ্গলবার রাতে ফক্স নিউজের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প বলেন, যে কোনো দেশের তুলনায় চীনে বেশি মানুষ মারা গেছেন, অথচ তারা তা প্রকাশ করছে না। হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাব অনুযায়ী করোনায় চীনে ৪ হাজার ৭২৪ জন মারা গেছেন। আর যুক্তরাষ্ট্রে ১ লাখ ৮৮ হাজার ৯০০ জন মারা গেছেন। যা যে কোনো দেশের তুলনায় বেশি।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প মাস্ক না পরায় এবং নাগরিকদের পরতে না বলায় সমালোচিত হয়েছেন। এ নিয়ে বিরোধী দল ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রভাবশালী রাজনীতিবিদ ও স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি প্রকাশ্যে ট্রাম্পের সমালোচনা করেছেন। কিন্তু মাস্ক না পরে সেলুনে যাওয়ায় এবার তিনিই সমালোচিত হয়েছেন। সম্প্রতি সান ফ্রানসিসকোর একটি সেলুনে ন্যান্সি পেলোসিকে দেখা গেছে। কিন্তু এ সময় তার মুখে মাস্ক ছিল না। মাস্ক ছিল তার গলায়।

বাসযাত্রীদের সংক্রমণে নতুন প্রমাণ : এয়ারকন্ডিশন বাসের যাত্রীদের করোনায় সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা বেশি। দূরে বসলেও যাত্রীরা করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন। মঙ্গলবার জামা ইন্টারনাল মেডিসিনে প্রকাশিত এক গবেষণা প্রতিবেদনে এমন দাবি করা হয়।

এতে বলা হয়, বাতাসের মাধ্যমে যে করোনাভাইরাস ছড়াতে পারে এটি তার নতুন প্রমাণ। এর আগে স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষগুলোর দাবি ছিল, হাঁচি-কাশির মাধ্যমে পানির যে ক্ষুদ্র কণা নির্গত হয় শুধু তাই বাতাসে ছড়িয়ে করোনার সংক্রমণ ঘটায়।

কলম্বিয়ায় লকডাউন প্রত্যাহার, বিমানবন্দর ফের চালু : ল্যাটিন আমেরিকার অন্যতম দেশ কলম্বিয়া দীর্ঘতম লকডাউন প্রত্যাহার করেছে মঙ্গলবার। এর মধ্য দিয়ে করোনার কারণে আরোপিত ৫ মাসের অধিক সময় ধরে চলা কোয়ারেন্টিনের বিধিনিষেধ বাতিল করল দেশটি। বিমানবন্দর চালু হয়েছে। পাশাপাশি দেশব্যাপী বাস চলাচল, রেস্তোরাঁ, ব্যায়ামাগার ও হোটেলগুলো খুলতে শুরু করেছে।

বিজ্ঞানীরা নিজ দেহেও টিকা টেস্ট করছেন : করোনার ভ্যাকসিন তৈরিতে বিশ্বজুড়ে চলছে জোর প্রচেষ্টা। এ পরিস্থিতিতে ডিআইওয়াইয়ের (নিজেদের শরীরে নিজেরাই ভ্যাকসিন প্রয়োগ) পরামর্শ দিয়েছেন অনেক বিজ্ঞানী। এ পথ অবলম্বন করে আশানুরূপ ফলাফলও পেয়েছেন বিশ্বের অনেক বিজ্ঞানী।

জন্স হপকিন্স বার্মান ইন্সটিটিউট অফ বায়োথিক্সের পরিচালক জেফ্রি কাহন বলেন, অন্যদের ডিআইওয়াই ভ্যাকসিন গ্রহণে উৎসাহিত করা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here