দ্রুত বিপুল পরিমাণ ভ্যাকসিন আনার লক্ষ্য

1
264

দেওয়ানবাগ ডেস্ক: চীনের আগেই যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য বাজারে ছাড়ার জন্য ৪শ কোটি ডোজ করোনা ভ্যাকসিন প্রস্তুত করে ফেলেছে বলে দাবি করেছে। ব্রিটিশ ফার্মা জায়ান্ট অ্যাস্ট্রাজেনেকা বলছে, তারা অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে যৌথভাবে ২শ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন উৎপাদন করেছে। আর যুক্তরাষ্ট্র বলছে, তারাও ২শ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন উৎপাদন করে ফেলেছে। সূত্র : বিবিসি, রয়টার্স। ব্রিটিশ ফার্মা জায়ান্ট অ্যাস্ট্রাজেনেকা সম্প্রতি জানিয়েছে, তারা অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে যৌথভাবে একটি ভ্যাকসিন প্রস্তুত করেছে।

সেপ্টেম্বরের মধ্যেই তারা এ ভ্যাকসিন বিশ্বকে দিতে পারবে। অ্যাস্ট্রাজেনেকার চিফ এক্সিকিউটিভ পাস্কাল সরিয়ট বলেন, ‘আমরা এখনও পর্যন্ত সঠিক লক্ষ্যেই রয়েছি। এখনও পর্যন্ত যে ভাবনা রয়েছে সেখানে গ্রীষ্মের শেষের মধ্যে সমস্ত তথ্য আমরা পেয়ে যাব। সুতরাং সেপ্টেম্বরেই আমরা জানতে পারবো যে, এই ভ্যাকসিন কতটা কার্যকরী ভূমিকা নিতে চলেছে।’ ব্রিটিশ গবেষকরা জানিয়েছেন, এই সপ্তাহেই ব্রাজিলে প্রথম এই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল হবে। ব্রিটেনের বাইরে এই ওষুধের ট্রায়াল প্রথম। মানুষের দেহে যদি কার্যকর হয় এই ভ্যাকসিন তাহলে এই কেমব্রিজের ওষুধ কোম্পানিটি ৪০ কোটি ডোজ বানাবে আমেরিকার জন্য, আর ১০ কোটি ডোজ তৈরি করবে ব্রিটেনের জন্য। সেই মোতাবেক চুক্তিও হয়ে গিয়েছে। পাশাপাশি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তারাও ২০০ কোটি ডোজের ভ্যাকসিন তৈরি করেছে। তবে সেগুলিকে এখনও সুরক্ষাবিধির বেড়াজাল টপকাতে হবে। বিগত কয়েকদিন ধরেই এ ভ্যাকসিনের ট্রায়াল চলছে।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, আমেরিকা এরই মধ্যে দুটি করোনা ভ্যাকসিন তৈরি করে ফেলেছে। তিনি বলেন, ‘ভ্যাকসিন নিয়ে দারুণ অগ্রগতি হচ্ছে দেশে। এখন কেবল এই ভ্যাকসিনের নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তিত রয়েছেন বিজ্ঞানীরা।’ এদিকে ভ্যাকসিন তৈরির দৌড়ে পিছিয়ে নেই চীন-রাশিয়া ছাড়াও জাপান, সিঙ্গাপুরও। এরই মধ্যে মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি টেকনোলজি ব্যবহার করে ভ্যাকসিন তৈরি করে তার ট্রায়াল শুরু করে দিয়েছে তাঁরা।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here