বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা পাচ্ছেন শাক ও সবজির বীজ

0
270


সালাহ উদ্দিন: সম্প্রতি অতিবৃষ্টি, পাহাড়ি ঢল, নদনদীর পানি বৃদ্ধি ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ৩৭ জেলার প্রায় দেড় লাখ কৃষক কৃষি পুনর্বাসনের অংশ হিসেবে ১৪ ধরনের শাক ও সবজির বীজ পাচ্ছেন।
চলতি খরিপ-২/২০২০-২১ মৌসুমে ক্ষয়ক্ষতি পুষিয়ে নিতে বন্যাদুর্গত জেলাসমূহে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে শাক ও সবজির বীজ বিতরণের জন্য কৃষি মন্ত্রণালয় ১০ কোটি ২৬ লক্ষ ৯৯ হাজার ৬৮৫ টাকা বরাদ্দ করেছে।


এই কার্যক্রমে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকের সংখ্যা ১ লক্ষ ৫১ হাজার ৬০০ জন। কার্যক্রমের আওতায় প্রতি কৃষক পরিবার স্বল্পমেয়াদী শাক ও মধ্যমেয়াদী সবজির বীজ পাবেন। স্বল্পমেয়াদি শাকের মধ্যে রয়েছে লালশাক, ডাটাশাক, কলমিশাক, মুলাশাক, পুঁইশাক, পালংশাক ও পাটশাক। মধ্যমেয়াদী সবজির মধ্যে রয়েছে শশা, লাউ, মিষ্টিকুমড়া, করলা, মরিচ, বরবটি ও শিম। অগ্রাধিকার তালিকাভুক্ত একজন কৃষক বন্যার ক্ষয়ক্ষতি পুষিয়ে নিতে ও বন্যাপরবর্তী সময়ে লাগানোর জন্য ৫০ গ্রাম লালশাক, ৫০ গ্রাম ডাটাশাক, ৫০ গ্রাম কলমিশাক, ১০০ গ্রাম মুলাশাক, ৫০ গ্রাম পুঁইশাক, ১০০ গ্রাম পালংশাক, ৫০ গ্রাম পাটশাক, ৩ গ্রাম হাইব্রিড শশা, ৫ গ্রাম হাইব্রিড লাউ, ৫ গ্রাম হাইব্রিড মিষ্টিকুমড়া, ১০ গ্রাম হাইব্রিড করলা, ২ গ্রাম হাইব্রিড মরিচ, ১০ গ্রাম হাইব্রিড বরবটি ও ৫০ গ্রাম স্বল্প কালিন ওপি জাতের বীজ পাবেন।
কর্মসূচীর আওতাভুক্ত জেলাসমূহ হচ্ছে, ঢাকা, গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ, নরসিংদী, মুন্সিগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, টাংগাইল, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, জামালপুর, শেরপুর, নেত্রকোনা, কুমিল্লা, চাঁদপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সিলেট, সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ, রাজশাহী, নওগাঁ, চাপাইনবাবগঞ্জ, নাটোর, বগুড়া, পাবনা, সিরাজগঞ্জ, রংপুর, গাইবান্ধা, কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, নীলফামারী, দিনাজপুর, কুষ্টিয়া, ফরিদপুর, মাদারিপুর, গোপালগঞ্জ, রাজবাড়ী ও শরিয়তপুর।


কর্মসূচীটি জেলা ও উপজেলা কৃষি পুনর্বাসন কমিটির তত্ত্বাবধায়নে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মাধ্যমে বাস্তবায়িত হবে।
[লেখক: উপজেলা কৃষি অফিসার, তিতাস.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here