বিশ্ববাজারে টানা ১২ মাস বেড়েছে খাদ্যপণ্যের দাম

0
22

অর্থনৈতিক ডেস্ক: বিশ্ববাজারে অব্যাহতভাবে বাড়ছে খাদ্যপণ্যের দাম। গত মে মাসে ৪.৮ শতাংশ বেড়েছে আগের মাস এপ্রিলের চেয়ে। তবে খাদ্যপণ্যের এই দাম এক বছর আগের একই সময়ের চেয়ে ৩৯.৭ শতাংশ বেশি। এর ফলে টানা ১২ মাস বিশ্ববাজারে বেড়েছে খাদ্যপণ্যের দাম। গত মাসে সবচেয়ে বেশি বেড়েছে ভোজ্য তেল, চিনি ও খাদ্যশস্যের দাম।


এর মধ্যে ভুট্টার দাম বেড়েছে ৮.৮ শতাংশ, বেড়েছে বার্লি ও সোগামের দাম। তবে মে মাসের শুরুতে গমের দাম বাড়লেও মাস শেষে আবার কমেছে। যদিও গমের দাম এখনো এপ্রিলের চেয়ে ৬.৮ শতাংশ বেশি এবং ২০২০ সালের মে মাসের চেয়ে ২৮.৫ শতাংশ বেশি। তবে চালের দাম স্বাভাবিক অবস্থায় রয়েছে।


গত মাসে বিশ্ববাজারে ভোজ্য তেলের দাম বেড়েছে ৭.৮ শতাংশ। এর ফলে টানা ১২ মাস বেড়েছে ভোজ্য তেলের দাম। বেড়েছে সয়াবিন, পাম ও র্যারপসিড তেলের দাম। বৈশ্বিক বাজারে চাহিদা বাড়লেও সে হিসেবে সরবরাহ না বাড়ায় পাম তেলের দাম ঊর্ধ্বমুখী। বায়োডিজেল খাতেও পাম তেলের ব্যাপক চাহিদা থাকায় মে মাসে এই তেলের দাম বেড়েছে। এক মাসের ব্যবধানে মাংসের দামও বেড়েছে ২.২ শতাংশ।


গত মে মাসে দুগ্ধপণ্যের দাম বড়েছে ১.৫ শতাংশ, যা এক বছর আগের একই সময়ের তুলনায় ২৮ শতাংশ বেশি। মে মাসে চিনির দাম আগের মাসের চেয়ে বেড়েছে ৬.৮ শতাংশ। এর মধ্য দিয়ে টানা দুই মাস বাড়ল চিনির দাম। বিশ্বের সবচেয়ে বড় চিনি রপ্তানিকারক দেশ ব্রাজিল। প্রতিকূল আবহাওয়ায় দেশটিতে আখ উৎপাদনে ধীরগতির ফলে উৎপাদন শঙ্কায় বাড়ছে চিনির দাম। তবে ভারত থেকে বিশ্ববাজারে সরবরাহ অব্যাহত থাকায় দাম দ্রুত বাড়ছে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here