৪ বছরের শিশু সৈয়দ ইযাজ-এ-খোদা এবার ২০টি রোজা রেখেছেন

7
2237
সৈয়দ ইযাজ-এ-খোদা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ইসলামের ৫টি স্তম্ভের মধ্যে রোজা অন্যতম। মহান রাব্বুল আলামিন পবিত্র রমজান মাসে প্রাপ্ত বয়স্ক সুস্থ নর ও নারীর উপর রোজা রাখা ফরজ করে দিয়েছেন। কিন্তু আমাদের সমাজে অনেক প্রাপ্ত বয়স্কদের মাঝেও রোজা না রাখার প্রবণতা লক্ষ্য করা যায়। অথচ সবাইকে অবাক করে দিয়ে মহান সংস্কারক সূফী সম্রাট হযরত সৈয়দ মাহ্বুব-এ-খোদা দেওয়ানবাগী (মা. আ.) হুজুর কেবলাজানের মাত্র ৪ বছরের নাতি সৈয়দ ইযাজ-এ-খোদা এবার পবিত্র রমজান মাসে ২০টি রোজা রেখেছেন। সৈয়দ ইযাজ-এ-খোদা-এর পিতা হলেন সেজো সাহেবজাদা ইমাম ড. সৈয়দ এ এফ এম ফজল-এ-খোদা (মা. আ.) এবং মাতা হলেন রাহীমা সুলতানা (মা. আ.)।

সৈয়দ ইযাজ-এ-খোদা পিতা ও মাতার একমাত্র পুত্র সন্তান। তাঁর রোজা রাখা প্রসঙ্গে ইমাম ড. সৈয়দ ফজল-এ-খোদা (মা. আ.) বলেন, “আমাদের পরিবারের সবাইকে রোজা রাখতে দেখে আমার পুত্র সৈয়দ ইযাজ-এ-খোদাও রোজা রাখার জন্য অনুপ্রাণিত হয়। ওর অধীর আগ্রহের কারণে আমি প্রথমে ১টি রোজা রাখার অনুমতি দেই। প্রথম রোজা রাখার পর সে আরো রোজার জন্য বায়না ধরে। ধর্ম পালনের প্রতি ওর এমন অনুরাগ দেখে আমি এবং আমার স্ত্রী অত্যন্ত খুশি হয়ে রোজা রাখার বিষয়টি ওর উপরেই ছেড়ে দিই। অতঃপর সে ২০টি রোজা রাখতে সক্ষম হয়। আমার মহান মোর্শেদ সূফী সম্রাট হুজুর কেবলাজানের কদম মোবারকে আর্জি- ‘ইযাজ-এ-খোদা যেন মহান মোর্শেদের সুমহান শিক্ষা ও আদর্শ নিজ হৃদয়ে ধারণ করে ভবিষ্যতে মোহাম্মদী ইসলাম প্রচারের খেদমতে নিজেকে নিয়োজিত রাখতে পারে’।

প্রিয় নাতি সৈয়দ ইযাজ-এ-খোদা ২০টি রোজা রাখায় সূফী সম্রাট হুজুর কেবলাজান অত্যন্ত সন্তুষ্ট হন এবং তাঁর উজ্জ্বল ভবিষ্যত কামনা করেন। ইযাজ-এ-খোদার সম্মানিত পিতা ও মাতা তাঁদের পুত্রের জন্য সকলের দোয়া কামনা করেছেন।

মূলত বিশ্ব বিখ্যাত ‘সুফি’ পরিবারে ইযাজ-এ-খোদা জন্মগ্রহণ করেছেন। তাই শৈশবের শুরু থেকেই সম্পূর্ণ সুফি পরিমণ্ডলে তিনি বেড়ে উঠছেন। ফলে পরিবারের নিকট থেকেই তিনি ধর্মীয় অনুরাগ ও চেতনা লাভ করছেন। আর এই চেতনাই তাঁকে খুব অল্প বয়স থেকেই ধর্মীয় বিধিবিধান পালনের প্রতি অনুরাগী করে তুলেছে। ২০টি রোজা রাখার জন্য সাপ্তাহিক দেওয়ানবাগ পরিবারের পক্ষ থেকে সৈয়দ ইযাজ-এ-খোদাকে জানাই আন্তরিক মোবারকবাদ।

7 COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here